রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১ | ১৭ শ্রাবণ, ১৪২৮ | ২১ জিলহজ, ১৪৪২

সর্বশেষ

প্রচ্ছদ অন্যান্য

‘উত্তপ্ত’ ম্যাচে শেষ মুহূর্তের গোলে জিতলো ব্রাজিল


প্রকাশের সময় :২৪ জুন, ২০২১ ৩:০৫ : পূর্বাহ্ণ

জয় সূচক গোলটি করেন বদলি হয়ে নামা ফিরমিনো:
স্পোর্টস ডেস্ক
কোপা আমেরিকায় দিনের প্রথম ম্যাচে ইকুয়েডরকে হারাতে ব্যর্থ হয়েছে পেরু। ম্যাচটা ড্র হয়েছে ২-২ গোলে। এর ফলে আজকের ম্যাচ জিতে গ্রুপ উইনার হিসেবে পরবর্তী রাউন্ডে যাওয়ার সুযোগ তৈরি হয় ব্রাজিলের। শেষ পর্যন্ত হয়েছেও তাই। স্বাগতিকরা কলম্বিয়াকে হারিয়েছে ২-১ গোলে।

টানা তিন জয়ের ফলে গ্রুপ ‘বি’ তে তিনটি ম্যাচ থেকে ৯ পয়েন্ট অর্জন করলো ব্রাজিল। ৪ মাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে রয়েছে কলম্বিয়া। এক ম্যাচ কম খেলা পেরু ৪ পয়েন্ট নিয়ে অবস্থান করছে তার পরেই। ২ পয়েন্ট করে রয়েছে ইকুয়েডর ও ভেনিজুয়েলার। সোমবার শেষ গ্রুপ ম্যাচে সেলেসাওদের প্রতিপক্ষ ইকুয়েডর।

বরারের মতো পরিবর্তনের ধারাটা এই ম্যাচেও রেখেছিলেন তিতে। শুরুর একাদশে আনা হয় ৫ পরিবর্তন। গোলবারেরর নিচে এদেরসনের জায়গায় আসেন ওয়েভারটন। মিলিতাওকে ড্রপ করে আনা হয়েছে মার্কুইনহোসকে। মিডফিল্ডে ফাবিনহো, এভারটনের বদলে এসেছেন কাসেমিরো ও এভারটন রেবেইরো। আক্রমণে আবার গ্যাবিগোলের বদলে এসেছেন রিচার্লিসন। এর পরেও শুরুতে ছন্দ ছিল না স্বাগতিকদের।

৯ ম্যাচ পর এমন হলো যেখানে ব্রাজিল গোল হজম করে বসে প্রথমার্ধেই। ১০ মিনিটে দর্শনীয় গোলে এগিয়ে যায় কলম্বিয়া। ডান প্রান্ত থেকে দূরের পোস্টে ক্রস দিয়েছিলেন কুয়াদ্রাদো। তার বল পেয়ে মাথা উল্টে বাইসেকল কিকে জাল কাঁপিয়েছেন কলম্বিয়ান মিডফিল্ডার লুইস দিয়াজ। ব্রাজিল গোলকিপার কোনও সুযোগই পাননি।

প্রথমার্ধে ৬৫ শতাংশ বল দখলে রেখেও ব্রাজিলের আক্রমণগুলো ছিল নখদন্তহীন। শুরুর ৩৫ মিনিটে কলম্বিয়ান গোলকিপার ওসপিনাকে সেভাবে পরীক্ষাতেই ফেলতে পারেনি! লক্ষ্য বরাবর মাত্র একটি শটই তারা নিতে পেরেছে। বিশেষ করে কলম্বিয়ানদের গোছানো ব্লকিং বার বার হতাশ করেছে নেইমারদের।

দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য ৫৬ মিনিটে সিলভার দেওয়া পাস ধরে গোলমুখে এগিয়ে গিয়েছিলেন নেইমার। কিন্তু ব্রাজিল অধিনায়ক ঠিকমতো শট নেওয়ার আগেই বল গ্লাভসবন্দি করে ফেলেন কলম্বিয়া গোলকিপার। ৬৬ মিনিটে সুবর্ণ সুযোগটি মিস করেন ব্রাজিল অধিনায়ক। ফিরমিনোর বুদ্ধিদীপ্ত পাসে নেইমার গোল মুখে বল পেয়ে গিয়েছিলেন। গোলকিপারকে কাটিয়ে বেশ সামনে চলে এসে শট নিলে সেটি গিয়ে লাগে ডান দিকের পোস্টে।

বার বার হতাশ হওয়া দলটি অবশেষে সমতা ফেরাতে পারে ৭৮ মিনিটে। তাও এক উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে। বাম প্রান্ত থেকে লোদির ক্রস থেকে হেড করে গোল করেন ফিরমিনো। এই গোল নিয়েই নাটক মঞ্চস্থ হয় বেশ কিছুক্ষণ। গোলটির বিল্ড আপে নেইমারের পাস শুরুতে পায়ে লাগে রেফারির। এর পরেও ম্যাচ চালিয়ে নিতে ইঙ্গিত দেন রেফারি নেস্তর পিতানা। ভার রিভিউতে গোলটি বৈধ ঘোষণা করলে কলম্বিয়ান গোলকিপার ওসপিনা তর্ক যুদ্ধে নামেন তার সঙ্গে। সঙ্গে যোগ দেন কলম্বিয়ান খেলোয়াড়রাও। পাঁচ মিনিট তর্ক করলেও রেফারি অবশ্য কোনও কার্ড প্রদর্শন করেননি।

এই কারণে শেষ দিকে বাড়তি সময় যোগ হলে সেখানেই জয় নিশ্চিত করেছে ব্রাজিল। ৯০+ ১০ মিনিটে নেইমারের নেওয়া কর্নার থেকে হেড করে জাল কাঁপিয়েছেন কাসেমিরো।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও খবর